Post Format

পিং সল্ট ও তার উপকার

হিমালয়ান পিঙ্ক লবণ ব্যবহার করেছেন কি ?

গোলাপী রঙের ক্রিস্টালের মতো দেখতে দানাদার হিমালয়ান পিঙ্ক লবণ দেখেছেন? ভারত থেকে চীনের মধ্যে যে প্রসারিত পর্বতশ্রেণী রয়েছে তার মধ্যে পাওয়া যায় এ লবণ।

লক্ষ লক্ষ বছর আগে এভারেস্ট থেকে একপ্রকার যৌগ এসে মেশে সমুদ্রের পানিতে। দীর্ঘদিন ধরে তা জমতে জমতে গোলাপি ক্রিস্টাল কণায় পরিণত হয়।

এ লবণে গোলাপী, সাদা এবং লাল বর্ণের খনিজ উপাদান বিদ্যমান থাকায় এর রং গোলাপী দেখায়। যা পটাশিয়াম, সালফেট, জিঙ্ক, কপার, ম্যাগনেশিয়াম, লোহাসহ প্রায় ৮৪ রকমের খনিজে ভরপুর। তাই এর গুণাগুণও অনেক বেশি।

ভাবছেন এতো কথা আমরা কেন বলছি? কারণ “দ্রব্যসেবা” সকলের জন্য সরবরাহ করছে হিমালয়ান লবণ, যা অনেকের কাছে পিঙ্ক সল্ট হিসেবে পরিচিত।

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় এ লবণ থাকলে তা দেহের দূষিত টক্সিন বের করে শরীরকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। ফলে রক্তে লোহিত রক্তকণিকার পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় কিডনি, লিভার ভালো থাকে।

তবে আকারে সাধারণ লবণের চেয়ে বড় পিঙ্ক সল্টের পুষ্টিগুণ সাধারণ লবণের থেকে অনেক বেশী এবং পরিমাণেও কম লাগে।

অনেকে বাথটাব বা বালতির পানিতে এক টুকরো হিমালয়ান লবণের চাক ছেড়ে দিয়ে গোসল করতে পছন্দ করে। প্রাকৃতিকভাবে এতে রয়েছে পুষ্টি উপাদান যা মাংস পেশীকে রিল্যাক্স করে ত্বকের চামড়া কুঁচকানো দূর করতে সহায়তা করে। সাথে সাথে মন ও শরীরকে রাখে সজীব আর প্রাণবন্ত।

করোনা দুর্যোগে সবাই বাসায় থাকুন, সুস্থ থাকুন। “দ্রব্যসেবা”, নিরাপদ খাবারের প্রয়োজনে আপনার পাশে সব সময়।